লম্বা হওয়ার কিছু গোপন টিপস– Click Here

আপনি কি হতাশাগ্রস্ত ? আপনার পছন্দের মেয়ে (বা ছেলে) কে নিজের দিকে আকৃষ্ট করতে পারছেন না কারন তারা লম্বা মানুষের প্রতি বেশী আকৃষ্ট?
বিধ্বস্ত মনে হয় এই ভেবে যে আপনি বংশগত ভাবে ছোট আকৃতির?
আপনি খাটো এই কারনে কাঙ্খিত চাকুরীর সুযোগ সুবিধা অথবা পদোন্নতি থেকে সবসময় বঞ্চিত হন?
কোন ক্লাবে প্রবেশ করতে বা অ্যালকোহল পান করতে চাইলে আপনাকে ছোট আকৃতির কারনে বয়স জানতে চাওয়া হয়।
লোকজনের সাথে কথা বলার সময় হীনমন্যতায় ভুগেন কারন মনে হয় যে আপনার কথা কেউ মনোযোগ দিয়ে শুনবে না?
আপনার উচ্চাতার জন্য আপনার অজীবনের স্বপ্ন একজন পেশাদার ক্রীড়াবিদ হওয়ার সুযোগ হারিয়েছেন?
আপনার জীবন কেবলই আবেগময় কষ্ট এবং হীনমন্যতায় ভরপুর।
আমাদের দেশের বেশিরভাগ তরুন তরুণীর মনের সুপ্ত ইচ্ছা লম্বা হওয়ার। কিন্তু অবহেলার কারণে লম্বা তো হতে পারছেই না সঙ্গে আরও সাইড এফেক্ট ও হচ্ছে। তাহলে কি লম্বা হওয়া যাবে না? যাবে, যাবে। তবে কিছু জিনিস জানতেও হবে।
* প্রথমে মাথায় রাখতে হবে লম্বা হওয়াটা নিজের ইচ্ছার উপর না। এর সঙ্গে জেনেটিক ব্যাপার জড়িত। খেয়াল করলে দেখা যাবে, একজন মানুষ সবসময় তার পরিবারের সকলের হাইটের কাছাকাছি হয়। আবার এমন হতে পারে দুইজন লম্বা বাবা মার সন্তান খাটো আবার খাটো বাবা মার সন্তান লম্বা। আশা করি আর বলতে হবে না, কারনটা কি? হুম, ঠিকই ধরেছেন। মেন্দেলের সূত্র।
* প্রচুর পরিমাণে পুষ্টিকর খাবারের কোন বিকল্প নাই। ফাস্ট ফুড শরীর মোটা করে ফেলে এবং পুষ্টিহীনতার কারণে মানুষ লম্বা হয় না।
প্রচুর পরিমাণে শাক সবজি, দুধ খেতে হবে। ভাত এর বদলে রুটি খেতে পারলে ভাল। ক্যালসিয়াম, ভিটামিন ডি, প্রোটিন, জিঙ্ক যুক্ত খাবার খেতে হবে।
* ভারি ব্যায়াম করেন? স্যরি, তা বন্ধ করতে হবে। পূর্ণ বয়স্ক না হওয়া পর্যন্ত তা লম্বা হওয়ার পক্ষে খুবই হানিকারক।
* ব্যায়াম একবারে বন্ধ না! লম্বা হওয়ার জন্য অনেক ভাল যোগ ব্যায়াম আছে। এগুলো অবশ্যই করবেন।
* ঘুমাতে হবে। তাই বলে ২০ ঘণ্টা ঘুমালে চলবে না! এক গবেষণায় দেখা গেছে, মোটামুটি ৮-৯ ঘণ্টা ঘুমাতে পারলেই অনেক।
* বিভিন্ন চটকদার বিজ্ঞাপন পরিহার করতে হবে। কখনই কফি লম্বা করবে না। আবার ধূমপান করলেই কেউ জিরাফ হতে পারবে না। বিভিন্ন হরমোন বয়স হবার আগে পুশ করলে খারাপ ছাড়া ভাল হবে না। খারাপ আর কি হবে?লম্বা হবে না আরকি!
* ভারি জিনিস বহন করা যাবে না। ভারি স্কুল ব্যাগ, পানি ভর্তি বালতি প্রভৃতি যেগুলো শরীরের উপর চাপ সৃষ্টি করে তা বহন করা যাবে না। ভারি জিনিস বহনের কারনে মেরুদণ্ডের উপর চাপ পড়ে এবং লম্বা হওয়া বাধা প্রাপ্ত হয়।
* পচা, বাসি খাবার অবশ্যই পরিহার করতে হবে। সকালে না খেয়ে কাজে যাওয়া পরিহার করতে হবে।
* ডাক্তারের সঙ্গে যোগাযোগ করতে হবে যদি ২০ বছর বয়সেও উচ্চতা সঠিকভাবে না বাড়ে।